জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিল প্রক্রিয়া | NU Admission Cancel System

0
687

ঘরে বসে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিল করবেন যেভাবে | NU Admission Cancel System A to Z

আমরা সবাই জানি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে একসাথে যে কোন দুইটি কোর্সে পড়ালেখা করতে পারে না। কেউ যদি ভুল করেও দ্বৈত ভর্তি (ডবল ভর্তি) হয়ে থাকে তাহলে তাকে পূর্বের ভর্তি বাতিল করতে হয়। বিশেষ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষে ভর্তির সময় অনেকেরই ভর্তি বাতিলের প্রয়োজন হয়ে থাকে। আগে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিলের জন্য সরাসরি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসে (গাজীপুর) গিয়ে আবেদন করা লাগত। কিন্তু এখন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সার্ভিস অনলাইনে করার ফলে আপনি চাইলেই ঘরে বসে আপনার যে কোন ভর্তি বাতিল করতে পারবেন। এর জন্য কোথাও যেতে হবে না। আজকের পোস্টে দেখানো সিস্টেমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স, ডিগ্রি, মাস্টার্স সহ অন্যান্য সকল কোসের্র ভর্তি বাতিল করতে পারবেন।

কিভাবে ভর্তি বাতিল করবেন?

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিলের জন্য প্রথমে আপনাকে তাদের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করে আবেদন করতে হবে তারপর একটা পে-স্লিপ দেওয়া হবে সেটা প্রিন্ট করে সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে। তারপর কিছুদিনের ভিতরেই আপনার ভর্তি বাতিল হয়ে যাবে।

ভর্তি বাতিল করতে যা যা লাগবে:-

  • কলেজ ফরওয়ারডিং লেটার
  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশন কার্ড।
  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের  ভর্তির ফরম

উল্লেখ্য, যাদের রেজিস্ট্রেশন হয় নাই তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময় যে ভর্তি ফরম পেয়েছিলেন সেটা দিবেন আর যাদের রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেছে তারা রেজিস্ট্রেশন কার্ড দিবেন।

আরো পড়ুনঃ- জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সেবা এখন অনলাইনে

অনলাইনে আবেদন:-
যাই হোক সবার আগে স্টুডেণ্ট একাউন্ট খুলবেন! স্টুডেণ্ট একাউন্ট যেভাবে খুলবেন তা নিচে দেয়া হলোঃ
১. প্রথমে http://www.nu.edu.bd/ এই ওয়েবসাইট এ যান এবং ন্যাভিগেশন মেনুর সবার ডানে Services মেনু থেকে Student Login এ ক্লিক করুন।
২. সেখানে গেলে লগইন পেজ ওপেন হবে। এর ঠিক নিচে Student Registration অপসন আছে। ঐখান এ ক্লিক করুন।


৩. এখন রেজিস্ট্রেশন ফর্ম ওপেন হবে। আপনি সঠিক ভাবে আপনার কোর্স এর নাম, সেশন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর গুলো দিবেন। যাদের রেজিস্ট্রেশন হয় নাই মানে নতুন ভর্তি হয়েছেন তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করার পর যে রোলটা পেয়েছিলেন সে রোলটা দিয়া ভর্তি বাতিলের Student Registration করবেন।
৪. এর পর কনফার্মেশন পেজ আসবে। সেখানে আপনি তথ্যগুলো ঠিক আছে কিনা দেখবেন। যদি ভুল হয় Try Again এ ক্লিক করবেন। আর ঠিক থাকলে সব Proceed এ ক্লিক করুন।

৫. এর পর আপনার বিস্তারিত তথ্য গুলো দিন। উল্লেক্ষ্য আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর এ হলো আপনার ইউজার নেম। আপনি এই পেজ এ আপনার মোবাইল নম্বর , পাসওয়ার্ড, ইমেইল নেম ইত্যাদি তথ্য প্রদান করবেন। এবং Save বাটন এ ক্লিক করে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শেষ করবেন। এর পর Student Login এ আপনি আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ও পাসওয়ার্ড প্রদান করে একাউন্ট এ প্রবেশ করবেন।

Student একাউন্ট খোলার পরের কাজ :-

১। আপনার ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে নিজের একাউন্টে লগ ইন করবেন তারপর আপনার সকল তথ্য দেখাবে কিছু তথ্য এড করতে বরা হবে। আপনার HSC এবং SSC পরীক্ষার রোল, বোর্ড, পাশের সন, জিপিএ ফিলাপ করে Update Profile এ ক্লিক করুন। তারপর দেখেন পেইজের বাম দিকে Academic Services নামে অপশন আছে এবং সেটায় ক্লিক করেন আর দেখবেন একই নামে আরেকটি সাব সেকশন ওপেন হবে!
২। এখন Academic Services সাবসেকশনে ক্লিক করার পর নিউ পেজ আসবে। সেখানে দেখবেন সবার উপরে Admission Cancel(AC) এর লিংক আছে, পাশে খরচও লেখা আছে। সেটায় ক্লিক করবেন।
৩। Admission Cancel(AC) এর আবেদন পেইজ চলে আসবে ক্লিক করার পর(! সেখানে File Attachment এর ঘরে প্রয়োজনীয় সকল কাগজপত্র এড করবেন।

আরো জানুন:- জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি উপবৃত্তির জন্য আবেদন করবেন যেভাবে

যা যা এড করতে হবে :  

১।কলেজ ফরওয়ার্ডিং লেটার (কলেজে একটা এপ্লিক্যাশন দিবেন ভর্তি বাতিলের আবেদন করে। সেই আবেদনপত্র যে গ্রান্টেড হয়েছে সেইটার স্ক্যান কপি)

২। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের  রেজিস্ট্রেশন কার্ডের কপি।

৩। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ফরমের স্ক্যান কপি (জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময় যে ভর্তি ফরম পেয়েছিলেন সেটা)

বি:দ্র:- যাদের রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেছে তাদের অবশ্যই রেজিস্ট্রেশন কার্ডের স্ক্যান কপি আপলোড করতে হবে আর যাদের এখনো রেজিস্ট্রেশন হয় নাই তারা শুধূমাত্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ফরমের স্ক্যান কপি দিয়ে ভর্তি বাতিলের আবেদন করতে পারবে।

৪। Reason ঘরে কেনো এডমিশন ক্যান্সেল করতে চান তার কারণ দর্শাবেন! তারপর প্রসিড বাটনে ক্লিক করে করবেন।

৫। ক্লিক করার সাথে সাথে আপনাকে আপনার আবেদন হয়ে গেছে এমন একটা ম্যাসেজ দেখাবে এবং আপনাকে পুনরায় ড্যাশবোর্ডে নিয়ে আসবে।

৬। ড্যাশবোর্ডে আপনার আবেদনের ডিটেইলস দেখতে পারবেন। আবেদনের ডিটেইলস এর করামের ডান পাশের Action নামক অপশনের নিচে দেখবেন পে-স্লিপ লেখা আছে সেটাতে ক্লিক করে আপনার আবেদনের ফি জমার ম্লিপটা ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে সোনারী ব্যাংকের যে কোন শাখায় নির্ধারিত ফি জমা দিয়ে দিবেন। ব্যাস আপনার কাজ শেষ এবার শুধু অপেক্ষা করবেন কয়েকদিন।

আবেদন কমপ্লিট করার পরের কাজ:-

ভর্তি বাতিলের জন্য অনলাইনে আবেদন ও ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার পর আর কোন কাজ নাই শুধু ২/৩ ‍দিন পর থেকে অনলাইনে  আবার আগের মত আপনার একাউন্টে লগ ইন করে দেখবেন যে আবেদনের Status পরিবর্তন হয়েছে কিনা। ভর্তি বাতিল হয়ে গেলে Approve লেখা থাকবে । তারপরর Approve এ ক্লিক করে পেপারটা ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে আপনার করেজে গিয়া জমা দিয়া আপনার সব কাগজপত্র তুলতে পারবেন।

ভর্তি বাতিলের খরচ:-

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বাতিলের মূল ফি হচ্ছে ৭০০ টাকা যেটা সোনালী ব্যায়কে জমা দিতে হয়। আর বাকি যে খরচটা এটা বেসরকারি কলেজে একেক কলেজে একেক রকম হতে পারে কারণ তাদের বেতন আরো অন্যান্য ফি বাবদ টাকা রাখতে পারে। আর সরকারি কলেজে কোন টাকা লাগবে না।

ইউটিউবে আমাদের সাথে সংযুক্ত হতে আমাদের চ্যানেলটি এখনি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

NU Admission Cancel System




LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here